বাংলায় ৯৮% বধূ নির্যাতন মামলা মিথ্যা

Bina pone

বাংলায় ৯৮% বধূ নির্যাতন মামলা মিথ্যা ভাবে করা হয়ে থাকে স্বামীর কাছ থেকে মোটা টাকা আদায় করার জন্য। অধিকাংশ সময়ে এতে মদত থাকে মেয়ের মায়ের যার সুযোগ নেন অসাধু পুলিশ ও উকিলেরা।

এভাবে বধূ নির্যাতনের মামলা রজু হলে এখনো মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অমান্য করে অধিকাংশ পুলিশেরা টাকার লোভে কুকুরের মতন ছোটেন স্বামীকে গ্রেফতার করতে, সত্য বা মিথ্যা তা যাচাই করারও প্রয়োজন বোধ করেন না।

একপেশে মহিলাদের পক্ষে দেশের আইন, ক্ষতিগ্রস্থ পুরুষেরা বিচার না পেলে বা নির্দোষ পুরুষেরা মিথ্যা মামলায় ফাঁসলে দেশে নারী নির্যাতন, খুন, ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির মতন অপরাধ আরো বাড়বে। কারন প্রত্যেক ক্রিয়ারই সমান ও বিপরীত মুখী প্রতিক্রিয়া থাকে।

জন্মসূত্রে কোন পুরুষ নারী নির্যাতক নন। দেশের পুরুষ-বিরোধী, দুর্নীতিগ্রস্থ আইনি ব্যবস্থার ত্রুটিপূর্ণ প্রয়োগ পুরুষ মানুষদের নারী নির্যাতন করতে বাধ্য করে। এই ভাবে একাংশের আইন প্রস্তুতকারক এবং আইনের রক্ষকরা সুকৌশলে জনগণকে ভুল বুঝইয়ে নারী নির্যাতন বাড়িয়ে যাচ্ছেন, তাঁরা হলেন আসল অপরাধী।

সুতরাং নারীবাদীরা মেয়েদের পক্ষে আইন বানিয়ে নারী নির্যাতন বারিয়ে দিচ্ছেন ! নারী পুরুষ নির্বিশেষে এই জুলুমবাজির তীব্র প্রতিবাদ করা উচিৎ।

পোষ্টটি লাইক, কমেন্ট করে ছড়িয়ে দিন বাংলার প্রতিটি কোনায়।

আপনার মতামত কাম্য !

[ বিঃ দ্র : ফেসবুকের নিয়ম অনুসারে
সামাজিক অবক্ষয় দমনে বাঙালি​ পেইজ এর
পোস্ট এ নিয়মিত লাইক, কমেন্ট
না করলে ধীরে ধীরে পোস্ট আর
দেখতে পাবেন
না।। তাই পোস্ট ভাল
লাগলে লাইক দিয়ে পেজে একটিভ থাকুন ]

Leave a Comment

*